"Yuvraj would have captained India, but Dhoni did!" Yograj Singh said

“যুবরাজই ভারতের অধিনায়ক হত, তবে পাকে চক্রে ধোনি হয়ে গেল!” জানালেন যোগরাজ সিং

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৬/০৫/২০২০

৬২ বছর বয়স্ক প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার এবং যুবরাজ সিং-এর পিতা যোগ সিং সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ধোনি ও কোহলি উভয়েই যুবরাজকে সহায়তা করেনি। অতীতেও একাধিকবার ছেলে যুবরাজের দলে স্থান না পাওয়া নিয়ে ধোনির দিকে আঙুল তুলেছেন যোগরাজ। প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলির তুলনায় ধোনি ও কোহলির থেকে তেমন কোনো সমর্থন পাননি যুবরাজ, এমনই বক্তব্য তার।গতবছর যুবরাজ অবসর নেওয়ার পরেও পুরোনো অভ্যেস বজায় রেখে আবার ধোনির দিকে আঙ্গুল তুললেন তিনি।

নিউজ ২৪ এর সাথে একান্ত একটি আলাপচারিতায় যোগরাজ বলেছিলেন, “এই ২ জনের (ধোনি ও কোহলি) পাশাপাশি নির্বাচকরাও তার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন।  সম্প্রতি রবির (রবি শাস্ত্রী) সাথে আমার দেখা হয়েছিল।  তিনি আমাকে একটি ছবির জন্য অনুরোধ করেছিলেন।  আমি তাকে উল্লেখ করেছি যে, সমস্ত দুর্দান্ত খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে একটি বিদায় সংবর্ধনা পাওয়া উচিত।  ধোনি, কোহলি বা রোহিত যখন অবসর নেবেন, তখন আমি বোর্ডকে অনুরোধ করব যে ভারতীয় ক্রিকেটে তাদের অবদানের জন্য একটি ভাল বিদায় সংবর্ধনার ব্যবস্থা করতে।  অনেকেই তার সাথে প্রতারনা করেছে এবং ব্যাথা দিয়েছে।”

তিনি ভারতীয় সিলেকশন প্যানেলেরও সমালোচনা করেছেন, বিশেষত প্রাক্তন ভারতীয় নির্বাচক শরণদীপ সিং-এর নাম উল্লেখ করে বলেছেন যে তিনি সর্বদা চাইতেন যে যুবরাজকে দল থেকে বাদ দেওয়া হোক। তার মতে ভারতের অধিনায়ক হওয়ার কথা ছিল যুবরাজের, তবে ভাগ্যের জোরে ধোনি অধিনায়ক ও শক্তিশালী দল পেয়েছিল। প্রাক্তন অধিনায়ক তথা বিসিসিআই এর সভাপতি গাঙ্গুলীর বিশেষ প্রশংসা করে তিনি জানান যে, সৌরভই প্রথম দল গঠন করা শুরু করেছিলেন এবং বিভিন্ন তরুণ ক্রিকেটারদের দলে সুযোগ দিয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, বরাবরই ধোনির বিরুদ্ধে নিশানা করেছেন যোগরাজ সিং। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ দলে যুবরাজকে না রাখার জন্য ধোনিকেই দায়ী করেছেন তিনি। যদিও কোন পাল্টা মন্তব্য না করে নীরব থেকেছেন ধোনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *